আপডেট নিউজ:

দি ডেইলী বার্তা পরিবারের পক্ষ থেকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা।

‌পুলিশের গাড়ির লাইসেন্স নেই, নিরাপদ সড়ক কীভাবে হবে?

দারাজের পুরষ্কার, এমন অজানা লিংকে কেউ ভুলেও ক্লিক বা প্রেবেশ কিংবা শেয়ার করবেন।

ব্রাজিলকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা শিরোপা জয় আর্জেন্টিনার

সর্বোচ্চ পেশাদারী উৎকর্ষতা অর্জনে মনোযোগ দিন : সেনা সদস্যদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী

বিএনপি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অন্ধ বিরোধিতা করছে: ওবায়দুল কাদের

চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম খোকন বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

রিফাত হত্যা মামলা: মিন্নি, ফরাজি, রাব্বি, সিফাত, হৃদয় ও হাসান এর মৃত্যুদণ্ড। বাকি ৪ আসামি খালাস।

ধর্ষণ মামলায় ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর গ্রেপ্তার

শিরোনাম:

সুনসান নীরবতার গড়াইটুপি মেলা মাঠে সরোজগঞ্জ ও হিজলগাড়ী প্রেসক্লাব সদস্যের মিলন মেলা

চুয়াডাঙ্গা প্রতিবেদক:

মিলন মেলায় মিলতে যে চাই, সবাই মিলে এই সকালে, আর দেরী নয়, সময় যে নাই প্রভাত রবি অস্ত যাবে ঔ বিকালে।
সুনসান নীরবতার গড়াইটুপি মেলা মাঠে সরোজগঞ্জ ও হিজলগাড়ী প্রেসক্লাব সদস্যের মিলন মেলা
সুনসান নীরবতার গড়াইটুপি মেলা মাঠে সরোজগঞ্জ ও হিজলগাড়ী প্রেসক্লাব সদস্যের মিলন মেলা

কবি চিত্ত রঞ্জন সরকারের সেই মিলন মেলা কবিতার শেষ লাইনের মতোই রাজনৈতিক প্রভাবের কারণে ৪ বছর পূর্বে অস্ত গিয়েছে শত বছরের ঐহিত্যবাহি চুয়াডাঙ্গা জেলার গড়াইটুপি মেটেরি মেলার।

প্রতি বছর বাংলা মাসের ৭ই আষাঢ় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্যে দিয়ে মাস ব্যাপী উদ্বোধন হতো এই মেলার। মেলাকে ঘিরে খাজা মালিক উল গাউস (র.) মাজার প্রাঙ্গনে চলতো মিলন মেলা। সেই স্মৃতি এখন অতীত। গড়াইটুপি মেলা এখন শুধুই স্মৃতি।

গতকাল একপ্রকার হঠাৎ করেই চুয়াডাঙ্গা সদরের সরোজগঞ্জ ও হিজলগাড়ী প্রেসক্লাবের সাংবাদিকরা ব্যতিক্রমী উদ্দ্যেগ নিয়ে প্রানবন্ত করে তোলে মেলার মাঠের মাজার প্রাঙ্গন।

মেলার মাঠে সাংবাদিকদের মিলন মেলায় যেনো প্রাণ ফিরে পায় পুরো প্রাঙ্গন। দুই প্রেসক্লাবের সদস্যের উম্মুক্ত আলোচনা আর মেলার মাঠের অতীত স্মৃতিচারনের কথাবার্তা যেনো কান খাড়া করে শুনছিলো প্রকৃতি।

প্রতিবছর ৭ই আষাঢ় চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের গড়াইটুপি গ্রামের অম্রাবতি মাঠে অবস্থিত খাজা মালিক উল গাউস (র.) এর মাজার প্রাঙ্গনে মেটেরি মেলা বসলেও গত ৪ বছর যাবত মেলা ইজারা না হওয়ায় বন্ধ রয়েছে সকল আয়োজন। বিগত ৩ বছরে মত এবছরও একপ্রকার নিরবে এসে ছিলো ৭ই আষাঢ়।

ঐহিত্যবাহী গড়াইটুপি মেলার মাঠের স্মৃতিরক্ষার্থে ব্যতিক্রমী আয়োজন করে সরোজগঞ্জ ও হিজলগাড়ী প্রেসক্লাব। গতকাল দুপুরের পর থেকেই মেলার মাঠে উপস্থিত হতে থাকে দুই প্রেসক্লাবের সাংবাদিকরা।

লকডাউনের কারণে দীর্ঘদিন একে অন্যের সাথে সরাসরি দেখা সাক্ষাত না হওয়ায় গতকাল সবাই একসাথে হতে পেরে আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়ে। সেলফি তোলা, একে অন্যের সাথে কুশল বিনিময় করে যেনো আত্ম জুরিয়ে নেন তারা।

মাজার প্রাঙ্গনের বট গাছের নিচে চেয়ার পেতে বসে মেলা নিয়ে স্মৃতিচারণের পাশাপাশি উমুক্ত আলোচনা চলে থেকে দীর্ঘক্ষণ। অন্য দিকে তখন চলছিলো রান্নার আয়োজন।

৬ বার মেলার দায়িত্বে থাকা সরোজগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম এস জে আলম সুমনের স্মৃতিচারন যেনো মন্ত্রমুগ্ধ করে তুলেছিলো আলোচনা।

এরই মাঝে সেখানে উপস্থিত হয়ে আয়োজন প্রানবন্ত করে তোলেন দৈনিক সময়ের সমীকরণের বার্তা সম্পাদক হুসাইন মালিক, দৈনিক মাথাভাঙ্গার মফস্কল বার্তা সম্পাদক আলম আশরাফ ও শেকড়ের সভাপতি শামীম হোসেন মিজি।

এই মিলন মেলায় উপস্থিত ছিলেন, সরোজগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি আরিফুল ইসলাম লিন্টুর সার্বিক ব্যবস্থপনায় উপস্থিত ছিলেন হিজলগাড়ী প্রেসক্লাব সভাপতি আরিফ হাসান, সরোজগঞ্জ প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি বুলবুল আহম্মেদ শিপন,

হিজলগাড়ী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সেলিম রেজা, সরোজগঞ্জ প্রেসক্লাবের সহ-সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান রুবেল, সাংগঠনিক সম্পাদক এম লাভলু রহমান, প্রচার সম্পাদক ইকরামুল,সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সামাদ অপূর্ব, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আকিমুল ইসলাম, তথ্য ও যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক রাতুল হাসান,

সদস্য আলামিন ও সাইফুল ইসলাম সহ সরোজগঞ্জ ও হিজলগাড়ী প্রেসক্লাবের সদস্যরা। সন্ধ্যার কিছুক্ষণ আগে সাংবাদিক লাভলুর রান্না করা খাবার খেয়ে তৃপ্তির ঠেকুর তুলে সকলে ফিরে যায় যার এলাকায়।

%d